আমাদের বিদ্যালয়ের ইতিহাস

দেশ ও জাতির স্বার্থে নিবেদিত প্রান
”শহিদ আলতাফ ”
মহান ব্যক্তি শহীদ আলতাফ উদ্দিন বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানার অন্তর্গত আগরপুরের বুকে প্রথম তিনি আলো দেখিয়ে ছিলেন। আলতাফ ছিলেন সাহসী ও অন্যায়ের প্রতি তিনি ছিলেন ক্ষমাহীন। বিপদকে তুচ্ছ করে সকল কাজে দ্বিধাহীন চিত্তে ঝাঁপিয়ে পড়ার মানষিকতা ছিল।
ভারত জুড়ে সাধীনতা আন্দোলনের টেউ উঠল। আলতাফ তখন মাট্রিক পরীক্ষার প্রস্ততি নিচ্ছিলেন। নির্যাতিত দেশ ও দেশবাসীর মুক্তি আন্দোলনে সাড়া দিলেন তিনি। শেষ হলো ছাত্র জীবন। গ্রামের উৎসাহী ছেলেদের নিয়ে প্রথম শুরু করেন “আগরপুর জুনিয়র হাই স্কুল” । বর্তমানে স্কুলটির নাম আগরপুর আলতাফ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এছাড়া বরিশাল শহরের আলেকান্দাতে শহীদ আলতাফ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়।রয়েছে। ১৯৪৭ সালে আলতাফ উদ্দিন বরিশাল মুসলিম লীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। ১৯৫০ সালে সাম্প্রতিক দাঙ্গায় ছেয়ে গেল দেশ। দাঙ্গায় প্রতিরোধে তিনি শান্তি কমিটি গঠন করলেন। সরকারী প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে এক পর্যায় তার জীবন দিয়ে দাঙ্গার অবসান ঘটাল। ১৯৫১ সাল হেতে ১৯৫৪ সাল পর্যন্ত সরকারী উদ্দোগে তার মৃত্তু বার্ষিকী তার গ্রামে পালিত হয়। বরিশাল জেলার স্কুল দুটি তার সৃতির কথা স্মরন করে। আমরা ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিদ্যালয়ের উন্নয়নে একধাপ এগিয়ে যাব এবং মহান ব্যক্তির সৃতির কথা স্মরন করব । ....